1. admin@ammarpluspnewschannel.com : admin :
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৫:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

দেশে সয়াবিন তেল লিটারে বেড়েছে ৮ টাকা, এদিকে জাতি ব্যস্ত শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

 

অনলাইন ডেস্কঃ

অনেকদিন ধরেই বাজারে লাগামহীন সয়াবিন তেলের মূল্য। সাম্প্রতিক সময়ে হুহু করে বেড়েই চলেছে এর দাম। রবিবার নতুন করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটারে আট টাকা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে বোতলজাত প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম বেড়ে হয়েছে ১৬৮ টাকা।

সরকার গত বছরের ১৯ অক্টোবর সর্বশেষ সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারিত করেছিল। সে সময় বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৭ টাকা বাড়িয়ে ১৬০ টাকা ধার্য করা হয়েছিল। কিন্তু গত জানুয়ারি মাসে দাম লিটারপ্রতি আট টাকা পর্যন্ত বাড়াতে ভোজ্যতেল পরিশোধন কারখানাগুলোর সংগঠন ‘বাংলাদেশ ভেজিটেবল ওয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশন’ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছিল। ওই আবেদনের এক মাস পর রবিবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) মালিকদের ওই প্রস্তাব মতোই বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটারে আট টাকা বাড়ানোর সিদ্ধান্তের কথা জানায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

অর্থাৎ ৪ মাসেরও কম সময়ে দেশে ২ দফায় বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বেড়েছে লিটারে ১৫ টাকা।

এতে এমনিতেই ক্রমবর্ধমান দ্রব্যমূল্যের কারণে ভুগতে থাকা দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত মানুষ আরো বেশি বিপাকে পড়েছেন। রাস্তাঘাট, গণপরিবহন, চায়ের দোকানের মতো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও অনেকে এ নিয়ে নিজেদের কষ্ট ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এডভোকেট ফেরদৌস মিয়া নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে লেখা হয়েছে, “ব্যবসায়ীরা যা চাইবে তাই হবে। লুটপাটের দেশ”। সৈয়দ ডালিম লিখেছেন, “আরো বেশি বাড়ালেও দেশের বড় বড় দায়িত্বে থাকা লোকদের কোনো সমস্যা নাই। কারণ তারা না চাইতে অনেক কিছু পেয়ে যায়৷ যত সমস্যা সাধারণ জনগনের, জনগণ বাঁচলেও কি মরলেও কি!”

সেলিম ভূইয়া নামে একজন ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এভাবে- একবারে তিনশ টাকা করে দিলেও কিছু করার নাই। সৈয়দ রতন আহমেদ ঠাট্টাচ্ছলে লিখেছেন- ভাবছি তৈল ছাড়া কিভাবে তরকারি রান্না করা যায়।

গোলাম মওলা ভূইয়া মনে করেন- নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যের দাম যতই বাড়ুক মাফিয়া হায়েনাদের কোন সমস্যা নাই, যত সমস্যা সাধারণ মানুষের। রাজু আহমেদ আক্ষেপ নিয়ে লিখেছেন, “সয়াবিন তেল লিটার প্রতি বেড়েছে আট টাকা। আর জাতি ব্যস্ত চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে”।

মোঃ সোহরাব হোসেন নামের একটি ফেসবুক পেইজে লেখা হয়েছেঃ নিম্ন আয়ের মানুষগুলো সব সময় খোলা সয়াবিন ও পাম ওয়েল কিনে থাকে। ২ বছর আগে যে দামে পাম ওয়েল ও খোলা সয়াবিন তেল কিনতো বর্তমানে সেই তেলের দাম দিগুণ হয়েছে। তেলের দাম দিগুণ হয়েছে কিন্তু নিম্ন আয়ের মানুষগুলোর আয় দিগুণ হয়নি বরং তারা কাজ হারিয়েছে৷ আন্তর্জাতিক বাজারে তেল, গ্যাসের দাম বাড়ার কারণ দেখিয়ে সরকারের মন্ত্রণালয়ও দেশীয় বাজারে দাম বাড়িয়ে দেয় কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে যখন দাম কমে তখন কিন্তু দেশীয় বাজারে দাম কমায় না।

এদিকে, সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানোর খবরে হতাশা এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরাও। বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য পরিচিয়ে ‘নুসরাত চৌধুরী’ নামের আইডি থেকে মূল্যবৃদ্ধির খবরটি শেয়ার করা হলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পরিচয়ে ‘ইসরাত জাহান ইতি’ আইডি থেকে কমেন্টে প্রশ্ন করা হয়েছে- আপু, তাহলে সাধারণ জনগণ কিভাবে বাঁচবে?

রাজধানীর বাড্ডা থানাধীন ২১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সহ প্রচার সম্পাদক পরিচয়ে ‘লায়চু জামান’ আইডি থেকে লেখা হয়েছে, “আরো দাম বাড়াতে থাকেন কোন সমস্যা নেই। মানুষ ছাড়া পৃথিবীর সমস্ত কিছুরই দাম বেড়েছে”। শিবচর থানা যুবলীগের কর্মী পরিচয়ে ‘ইকবাল মোল্লা’র আইডি থেকে লেখা হয়েছেঃ গরিব মানুষ কেমনে বাচঁবো বুঝি না”।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 Ammar Plus P news Channel
Theme Customized By Shakil IT Park
error: Content is protected !!