1. admin@ammarpluspnewschannel.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
গোপালগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টা মামলার বাদীকে মামলা তুলে নিতে হুমকি ফরিদপুরের ধর্ষণের পর হত্যা, বাথরুমে মিলল ছাত্রীর লাশ উত্তরায় ক্রেন থেকে গার্ডার পড়ে প্রাইভেটকারের ৪ যাত্রী নিহত ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন জিএম কাদের উন্নয়নের নৌকা এখন শ্রীলঙ্কার পথে- জি এম কাদের গোপালগঞ্জে কাশিয়ানীতে ভ্যানের চাকায় ওড়না জড়িয়ে নারীর মৃত্যু নারায়গঞ্জে লাঙ্গলের হাল ধরলেন সানাউল্লাহ ও আবু নাঈম ফরিদপুরে পিস্তল-গুলিসহ যুবক গ্রেপ্তার গোপালগঞ্জ জেলার আওতাধীন গোপীনাথপুর পুলিশের সেবার মান আমূল বদলে গেছে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে মামলা থেকে রেহাই পেতে এবং সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

বাংলাদেশে বন্যাকবলিত এলাকায় এ পর্যন্ত পানিতে ডুবে, বজ্রপাতে এবং সাপের কামড়ে ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৫ জুন, ২০২২
  • ৩৬ বার পঠিত

 

অনলাইন ডেস্কঃ

বাংলাদেশে বন্যাকবলিত এলাকায় এ পর্যন্ত পানিতে ডুবে, বজ্রপাতে এবং সাপের কামড়ে ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে।   এরমধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ২৬ জন।

শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এ তথ্য দিয়েছে।

সম্প্রতি দেশের সিলেট বিভাগে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুম বৃহস্পতিবার থেকে বন্যার তথ্য দেওয়া শুরু করেছে। প্রথম দিনের তথ্যে বলা হয়েছিল সিলেট, ময়মনসিংহ ও রংপুর বিভাগে বন্যায় ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। পরদিন ২২ জুন কন্ট্রোল রুম ৪২ জনের মৃত্যুর তথ্য জানায়।

এ ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ১৭ জুন থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত বন্যাকবলিত এলাকায় ৭০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একদিনে ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। বন্যায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে সিলেট বিভাগে। এই বিভাগে এ পর্যন্ত ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সিলেট বিভাগের চার জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে সুনামগঞ্জ জেলায়। এই জেলায় এখন পর্যন্ত ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরপর বেশি মৃত্যু হয়েছে সিলেট জেলায়। জেলাটিতে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ বিভাগের হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলায় মারা গেছে যথাক্রমে ১ ও ৩ জন।

সিলেটের পর বন্যায় বেশি মৃত্যু হয়েছে ময়মনসিংহ বিভাগে। এই বিভাগে মারা গেছে ১৮ জন। এ বিভাগের ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা ও জামালপুর জেলায় পাঁচজন করে মারা গেছে। শেরপুর জেলায় মারা গেছে তিনজন। রংপুর বিভাগের কয়েকটি জেলাতেও বন্যা দেখা দিয়েছে। বিভাগের কুড়িগ্রাম জেলায় তিনজন ও লালমনিরহাট জেলায় একজন মারা গেছে বলে কন্ট্রোল রুম জানিয়েছে।

বন্যা উপদ্রুত এলাকায় বেশি মৃত্যু হচ্ছে পানিতে ডুবে। এ পর্যন্ত পানিতে ডুবে ৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর বজ্রপাতে ১৪ জন মারা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, বন্যাকবলিত এলাকায় ডায়রিয়াসহ বিভিন্ন রোগে ৪ হাজার ৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ৮৯৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭৯ জন। এরমধ্যে সিলেট বিভাগে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৮৬ জন।

বৃষ্টি আর উজানের ঢলে সিলেটের হাজার হাজার মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। শহর থেকে গ্রামে বন্যায় যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। তবে সিলেটের বিভিন্ন নদ-নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। বন্যায় জেলা শহরের সঙ্গে সদর, গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট, জৈন্তাপুর, কোম্পানীগঞ্জ ও জকিগঞ্জ উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। বিদ্যুৎ, মোবাইল নেটওয়ার্কসহ সারা দেশের সঙ্গে যোগাযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে বন্যাকবলিত উপজেলার বাসিন্দারা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 Ammar Plus P News Channel
Theme Customized By Theme Park BD